অনিরুদ্ধের অ-সিরিজের তৃতীয় ছবিতে সুনীলের 'দুই নারী হাতে তরবারি'

‘অপরাজিতা তুমি': প্রিভিউ

MAB Rating:
4

উজ্জয়িনী মুখোপাধ্যায়
কলকাতা, ডিসেম্বর ১৫, ২০১১

aparajito tumi

প্রবাসী দুই ‘কাপল’এর প্রাত্যহিক অন্তর্দ্বন্দের ভিত্তিতে শুরু হয় অনিরুদ্ধর নতুন ছবির কাহিনি। ছবি- গ্রাফিক্স

তাঁর ঝুলিতে জাতীয় পুরষ্কার। ব্যাক টু ব্যাক দু'খানা হিট ছবির খেতাবও তাঁর সঙ্গে। ‘অনুরনণ’ আর ‘অন্তহীন’-এর চূড়ান্ত সাফল্যের পর, তাঁর ‘অ’ সিরিজের তৃতীয় ছবির নাম ‘অপরাজিতা তুমি’। তিনি অনিরুদ্ধ রায়চৌধুরি। সম্প্রতি প্রিয়া সিনেমার হাজির হয়েছিল 'টিম অনিরুদ্ধ'। কথা আর ফ্ল্যাশের ঝলকে চোখ ঘোরালেই দেখা হল তাঁর ছবির চেনা সঙ্গীত শিল্পী ও তারকাদের। আসলে উপলক্ষ্য ‘অপরাজিতা তুমি’- র মিউজিক লঞ্চ ও মিউজিক প্রিভিউ শো।

গ্যালারি দেখুন

প্রবাসী দুই ‘কাপল’এর প্রাত্যহিক অন্তর্দ্বন্দের ভিত্তিতে শুরু হয় অনিরুদ্ধর নতুন ছবির কাহিনি। এবারের ছবিতে বাঙালি আবেগ ও মডার্ন সময়ের জীবনযাত্রা ফুটিয়ে তুলেছেন তিনি। এই দুই কাপলের মধ্যে একজন প্রসেনজিৎ। বিদেশের সফল কর্পোরেট জীবনের ব্যস্ততার মাঝেই ছোট পরিবার নিয়ে খুশি সে। এই দুই পরিবারের দৈনন্দিন জীবনের চলার পথে ক্রমশ: ফুটে উঠতে থাকে তাদের আসল চেহারাগুলো। উচিত-অনুচিত অথবা ঠিক-বেঠিকের বাইরে গিয়ে তারা খুঁজতে যায় জীবনের আসল শান্তি-আসল সুখ। আর এভাবেই এগোতে থাকে ‘অপরাজিতা তুমি’ । সব মিলিয়ে বলা যায় পরিচালক অনিরুদ্ধ রায়চৌধুরির ক্যামেরায় ধরা পড়েছে বর্তমানের এক অপরাজিত সময়ের কথা। রাতের গ্ল্যামারাস ‘রাঁদেভূ’তে জানা গেল অনিরুদ্ধের নতুন ছবির 'সিলসিলা', সেট এর নানান মজার কথা। শিল্পীদের বেশিরভাগই আগেও একসঙ্গে কাজ করেছে, ফলে ফর্মাল সম্পর্কের বাইরে গিয়ে কিছুটা দোস্তির কুল এফেক্টে কাজ করতে হয়েছে সুবিধে, জানালেন অনেকেই।

ভিডিও দেখুন

বিশিষ্ট সাহিত্যিকদের গল্প উপন্যাসের ভিত্তিতে তৈরি করা বাংলা ছবি দর্শকদের কাছে যদিও নতুন নয়। নতুন গল্পের সঙ্গে সঙ্গেই তাই বার বার ফিরে আসতে দেখা গেছে সেই ট্রেন্ডকে। রবীন্দ্রনাথ-শরৎবাবু-বঙ্কিমের মত আরও অনেক নামজাদা লেখকের কাহিনি অবলম্বনে সেকাল ও একালে তৈরি হয়েছে অনেক ছবি। অনিরুদ্ধর ছবি গড়ার ইতিহাসে ‘অপরাজিতা তুমি' এনেছে সেদিক থেকে এক নতুন মোড়। পুরোনোর স্বাদ পেতে ছবির প্লট হিসেবে তিনি বেছে নিয়েছেন সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের একটি উপন্যাসকে। বিখ্যাত সেই উপন্যাসের নাম, 'দুই নারী, হাতে তরবারি'। পুরোনও গল্পের সঙ্গে নতুন টেকনলজির মেলবন্ধন আর প্রবাসের আবহাওয়ায় শ্যুটিং-সব ফ্যাক্টরগুলো মিলিয়ে বেশ জমে গেছে যেন ব্যাপারটা । আসলে 'কৃষ্ণকান্তের উইল', 'একান্ত আপন', 'এখানে পিঞ্জর' কিম্বা 'মনের মানুষের’ মত একরাশ হিট ছবির দলেই নাম লেখাতে চলেছে এ ছবিও। লেখক সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের ‘দুই নারী হাতে তরবারি’ উপন্যাসের ভিত্তিতে তৈরি হওয়ায় গল্পের প্লট নিয়ে নতুন করে ভাবার কিছু নেই। যখন এই উপন্যাস প্রথম প্রকাশিত হয়, তখনই সাড়া ফেলেছিল। তাছাড়া, নায়ক নায়িকার সম্পদ খুঁজে সেরা ‘ডিসার্ভিং’ নায়ক নায়িকা দিয়ে পরিচালক সাজিয়েছেন ছবির আউটলাইন। ছবির মুখ্য ভূমিকায় দেখা যাবে টলিউড বাদশা প্রসেনজিৎ ও কমলিনী, পদ্মাপ্রিয়াকে। থাকছেন ইন্দ্রনীল, কল্যাণ রায়, তনুশ্রী শঙ্কর, সৌমিত্র চ্যাটার্জীর মত শিল্পীরাও। 'অটোগ্রাফ'-এর পর এক পর্দায় আরেকবার এই ছবিতে দেখা যাবে ইন্দ্রনীল ও প্রসেনজিৎকে একসঙ্গে।
 
নতুন বছরের শুরুতেই মুক্তি পেতে চলা এই ছবির পুরোটাই শ্যুট করা হয় সুদূর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রতে। এটি “বাঙালির নিউ ইয়ারের অভিনব গিফট্’’ বললেন অনিরুদ্ধ। কলকাতা কিংবা ভারতের বাইরে এর আগেও কাজ হয়েছে অনেক ছবির, তবে পুরো ছবির শ্যুটই বিদেশে করে এ ব্যাপারে নজির গড়লেন পরিচালক অনিরুদ্ধ রায়চৌধুরি। বাঙালি গল্প-বাংলার নায়ক নায়িকা আর বিদেশে শ্যুটের লোকেশন...সবমিলিয়ে বলা যেতেই পারে...সাত সমুদ্রের দুরত্ব এক নিমেষে উষ্ণ আবেগের নেটওয়ার্কে গেছে মিলেমিশে।
 
আন-কনভেনশনাল পরিচালক হিসেবে পরিচিত অনিরুদ্ধ’র ছবির আন্যতম আকর্ষণ ছবির গান। 'অনুরনণ' কিম্বা 'অন্তহীন'- দুটি ছবিতেই ছিল একঝাঁক হিট গান। তাই ছবিটি হল ছেড়ে চলে যাওয়ার অনেক পরেও গানের রেশ রেখে গিয়েছিল দর্শকদের মনে। ছবির অন্যতম আকর্ষণ এর গান। শান্তনু মৈত্রের সুর ও সঙ্গীত পরিচালনা, অনিন্দ্য-চন্দ্রিলের লিরিক্স এবং শ্রেয়া-মোনালী-রুপঙ্কর-হামসিকার গায়কী...ব্যাস এইটুকুই বোধহয় যথেষ্ট। 'অন্তহীন' ছবির সাফল্যের পর আরেকবার অনিন্দ্য ও অনিরুদ্ধকে কাজ করতে দেখা গেল একসঙ্গে। দর্শকরা এখন শুধুই এই নতুন স্বাদের ছবির মুক্তির অপেক্ষায়।