ফ্রুট ইন ফর্ক

MAB Rating:
3

নবনীতা সরকার
কলকাতা, জুলাই ২১, ২০১১

ভূতের ভবিষ্যত ছবি- নিজস্ব চিত্র

‘ফ্রুট ইন ফর্ক’-নিজের প্রথম সিনেমাকে দর্শকদের সামনে এভাবেই তুলে ধরতে চান পরিচালক অনীক দত্ত । তাঁর নতুন ছবি ‘ভূতের ভবিষ্যত’ এ হাসি, মজা, ভয়, ভালো লাগার এক ককটেল হিসাবে পরিবেশন করতে চলেছেন এই অ্যাডফিল্ম মেকার। সিনেমার সময়কাল সত্তর এর দশকের সময়কাল হলেও সব বয়সী দর্শকদের মনোরঞ্জন হওয়ার ছবি, এমনটাই আশা করছেন কলা কুশীলবরাও।

সিনেমার মুখ্য চরিত্র অয়ন (পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়) এখানে একজন পরিচালক এবং সূত্রধরের চরিত্রে অভিনয় করেছেন। একটি পোড়ো ভৌতিক বাড়িতে সিনেমার শুটিং করতে এসে বিভিন্ন ভূতুড়ে কর্ম কান্ডের শিকার হন অয়ন। এ ছবির এক উল্লেখযোগ্য চরিত্র সব্যসাচী চক্রবর্তী এখানে সত্তর এর দশক এর একজন পদার্থবিদ্যার অধ্যাপক এর চরিত্রে অভিনয় করেছেন। চরিত্রটির সঙ্গে রাজনৈতিক যোগসূত্রও রযেছে। পরিচালক অনীক দত্ত এই ছবিতে বর্তমান রাজনীতি প্রসঙ্গে কিছু তীর্যক মন্তব্য রেখেছেন। ছবিটির মুখ্য নায়িকার চরিত্রে কেউ না থাকলেও মনামী, স্বস্তিকা এবং শ্রীলেখা মিত্র তিনজন আলাদা এবং উল্লেখযোগ্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন। স্বস্তিকা একটি ভূতের চরিত্রে অভিনয় করেছেন। যার অপঘাতে মৃত্যু হয়েছে এবং ব্যর্থ প্রেম ভুলতে না পেরে ফিরে আসে এই বাড়িটিতে।

অনেকদিন পর স্বস্তিকা এবং পরমব্রতর একসঙ্গে অভিনয় দেখবেন দর্শক। সিনেমার প্রতিটি পরতে পরতে টুইস্ট রয়েছে, যা দর্শক দেখে বুঝতে পারবে – আশাবাদী পরিচালক। ভূতকে নিয়ে সিনেমা করবেন এমন পরিকল্পনা না থাকলেও এর বিষয়বস্তু খুব ইন্টারেস্টিং বলে মনে করেন তিনি। বরাবর সত্যজিৎ রায় এর সিনেমা দেখে অনুপ্রাণিত হওয়া এই নবীন পরিচালক এখানে ‘গুপি গাইন বাঘা বাইন’ এর গান রিংটোন হিসাবে ব্যবহার করেছেন। ছবি তে অনেকটাই সত্যজিৎ রায় এর প্রভাব আছে বলে দাবি করেছেন পরিচালক। সিনেমার কিছু অংশ কলকাতা এবং মূল অংশ শ্রীরামপুরের একটি বহু প্রাচীন বাড়িতে শুটিং করা হযেছিল। ফলে ভৌতিক এফেক্ট গুলো পেতে সুবিধা হয়েছে। তাতে অবশ্য সিনেমায় শুটিংএ কিছু ভৌতিক অভিজ্ঞতা-ও হয়েছিল অভিনেতা-অভিনেত্রী দের। পরিচালকের আশা, কাওয়ালি বাওয়ালি সব ধরনের গানের ককটেল এক অন্য মাত্রা যোগ করবে এই ছবিতে। সব্যসাচী থেকে পরমব্রত সকলেই পরিচালক অনীক দত্তর সঙ্গে কাজ করে খুব খুশি। ভবিষ্যতে এ এরকম গল্পের স্ক্রিপ্ট পেলে তারা আবার অভিনয় করতে চান। অদূর ভবিষ্যতে পরিচালক থ্রিলার, লাভ স্টোরি বা হাসির গল্প বলতেই ভালোবাসবেন। এখন শুধু ভূত দেখার অপেক্ষা ভবিষ্যত সময়ের জন্য।